হোমনায় নিখোঁজের ১২দিন পর যুবকের বস্তাবন্ধি লাশ উদ্ধার

মো. তপন সরকার, হোমনা(কুমিল্লা)প্রতিনিধি
কুমিল্লার হোমনায় নিখোঁজের ১২ দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার(১৬ জুন) সন্ধ্যা ৭ টায় সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) সার্কেল মো.ফজলুল করিমের নেতৃত্বে  দুলালপুর আমিরুল ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মানাধীন চারতলা ভবনের নীচ তলার একটি কক্ষের মাটির নীচ থেকে জবাই করা বস্তাবন্ধি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলা ৩নং দুলালপুর ইউনিয়ন রাজনগর গ্রামের মুকবল মিয়ার ছেলে ফয়সাল (১৮) এর সাথে একই গ্রামের ফুল মিয়ার মেয়ে মেহেদী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল ।
ফয়সাল ঢাকায় একটি  কোম্পানিতে চাকুরী করত। কিন্ত প্রমের টানে প্রায়ই সে বাড়ি চলে আছে ।  যা মেয়ের পরিবার মেনে নিতে পারে নাই । এ নিয়ে দুই পরিবারের মাঝে মনমালিন্য চলে আসছে ।  গত শুক্রবার (৫ জুন) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ইউনিয়ন পরিষদেও সামনে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছেছিল ফয়সাল।  কে বা কাহারা ফয়সালকে মোবাইলে ডেকে নেয় এর পর থেকে সে নিখোঁজ হয়।
হোমনা-মেঘনা অঞ্চলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. ফজলুল করিম  বলেন, থানায় নিখোঁজ ডায়েরী করার পর প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে রহস্য উদঘাটনে কার্যক্রম চালিয়ে যায় । পরবর্তীতে ফুল মিয়ার মেয়ে মেহেদী আক্তার ও স্ত্রী লাইলী আক্তার  নদীতে রক্ত মাথাপলিথিন ধোয়ার সূত্র ধরে  তাদের কে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করি ।পরবর্তীতে মেয়ের তথ্য তাঁর ভাই শামীম কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।
তাকে জিজ্ঞাাবাদের পর হত্যার রহস্য উদঘাটিত হয় । তাঁর দেখানো মতে বিদ্যালয়ের মেজে থেকে বস্তাবন্দী এ লাশ উদ্ধার করা হয়।
আজ বুধবার লাশ ময়নাতদন্তরে জন্য কুমিল্লা হাপাতালে প্রেরণ করা হবে।
পরে এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী মো. জসিম মিয়া জসু কে আটক করা হয়েছে । জসু মিয়া ফুল মিয়ার শ্যালক । তিনি বলেন, প্রেম ঘটিত বিষয়ে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে শামীম পুলিশের নিকট স্বীকার করেছে ।
এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন সওদাগর বলেন, ফুল মিয়া পাশ্ববর্তী বান্ছরামপুর উপজেলার পাইকারচর গ্রাম থেকে এসে এখানে বসবাস করছে । সে এবং তাঁরর শ্যালক একাধিক হত্যা মামলার আসামী । সে পেশায় একজন কসাই।
লাশ উদ্ধারের সময় পুলিশ পরিদর্শক (ডিবি) ইফতিয়ার হোসেন, ওসি মো. আবুল কাযেস আকন্দ, ওসি (তদন্ত) আমিনুর রসুল, সহকারী পুলিশ পরিদর্শক (ডিবি) পরিমল চন্দ্র দাস পিপিএম সহ সঙ্গীয় ফোর্স ও এলাকার জনতা
উপস্থিত ছিলেন।

2,920 total views, 1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Lost Password?