সেনবাগে গৃহবধূর রহস্যময় মৃত্যু, লাশ মর্গে প্রেরণ

রফিকুল ইসলাম সুমন (নোয়াখালী  প্রতিনিধি):

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় জান্নাতুল ফেরদাউস জান্নাত (২২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যময় মৃত্যু হয়েছে। ৫ মে বুধবার দুপুরে উপজেলার ২ নং কেশারপাড় ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রাম থেকে ঐ গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে সেনবাগ থানা পুলিশ। নিহত  জান্নাত ঐ গ্রামের আমির হোসেনের স্ত্রী ও সোনাইমুড়ী উপজেলার বারগাঁও গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম এর মেয়ে।

জান্নাতের মৃত্যুকে ঘিরে পুরো এলাকা জুড়ে  চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই ধারণা করছেন এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়,  বছর খানেক আগে সেনবাগের খাজুরিয়া গ্রামের ৩নং ওয়ার্ডের জামাল উদ্দিনের ছেলে আমির হোসেনের সঙ্গে বারগাঁও গ্রামের জাহাঙ্গীরের মেয়ে জান্নাতের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে বিয়ে হয়। আমির হোসেনের পরিবার ওই বিয়ে মেনে না নেওয়ায় আমির হোসেন শশুড় বাড়িতে থাকতো। কিন্তু বিগত ৩ মাস আগে উভয়ের পরিবারের বনিবনা হওয়ায় জান্নাত শশুর বাড়িতে আসে। আসার পর থেকে বিভিন্ন সময় শশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে ঝড়গা বিবাদ লেগেই থাকতো।

মঙ্গলবার রাতেও শশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে গৃহবধূ জান্নাতের ঝগড়া হয়। এরপর সে ৫ মে বুধবার রাত সাড়ে ৩ টার দিকে সকলের সঙ্গে সেহরী খায়,পরবর্তীতে নামায শেষে স্বামী আমির হোসেন মসজিদ থেকে বাড়িতে এসে দেখেন তার  নিজ শয়ন কক্ষে বৈদুতিক ফ্যানের সঙ্গে গলায় গামছা পেঁছানো অবস্থায় স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদাউসের লাশ ঝুলছে।
এ সময় পরিবারের লোকজন জান্নাত আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে।

 বুধবার সকাল  সাড়ে ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে এসআই সবুজ চন্দ্র পাল সহ সেনবাগ থানায় কর্মরত সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স।এসময় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।
সেনবাগ থানার ওসি আবদুল বাতেন মৃধা লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে জানান, এ ব্যাপারে থানায়  অপমৃত্যু(ইউডি) মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Attachments area

2,293 total views, 1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Lost Password?