কুমিল্লায় পুকুরের জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষঃ আহত ৬

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সোন্দ্রমপুর গ্রামে পুকুরের জায়গা দখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছে। তারা সকলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

জানা যায় ৭ মার্চ সকাল ১০টায় আমির হোসেন গ্রুপ ও রেনু মিয়া গ্রুপের মধ্যে জায়গায় দখলকে কেন্দ্র করে মারামারি হয়। খোজ নিয়ে জানা যায় ৮১ শতকের একটি পুকুরের মালিক বিভিন্ন পক্ষ। এর মধ্যে আমির হোসেন গংরা মালিক ৫১ শতক এবং রেনু মিয়া মালিক ৩ শতক।  কিন্তু রেনু মিয়া জোরপূর্বক আমির হোসেনদের জায়গা দখল করে রেখেছে বলে অভিযোগ করেন আমির হোসেনের ছেলে ইসমাঈল হাসান সুজন। সুজন বলেন, ৭ মার্চ সকালে রেনু মিয়া তার দলবল ও সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমাদের জায়গা ভরাট করে ঘর তুলতে যায়। খবর পেয়ে আমরা বাঁধা দেই। আমাদের জায়গায় কেন ঘর তুলবেন?

কেন বাঁধা দিলাম, তাই রেনু মিয়ার নেতৃত্বে রেনু মিয়ার ছেলে শাকিল (২৪), মেয়ের জামাই সফিক (২৫), রেশত আলীর ছেলে খলিলুর রহমান ও আ: ছামাদ (৪০) সহ ১৫-২০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র, বটি দা, ছেনি, মাছ ধরার চল, এসএস পাইপ ও লাঠি দিয়ে এলোপাথারি আঘাত করে। তাদের আঘাতে রক্তাক্ত আহত হন আমির হোসেনের ছেলে ইসমাইল হোসেন সুজন (২৪), মফিজুল ইসলামের ছেলে ওমর ছামদাী শুভ (১৮) ও হানিফ মিয়ার ছেলে জিলানী (১৭) প্রমুখ। আহত সুজন জানান, জায়গাটি নিয়ে দেবপুর পুলিশ ফাঁড়িতে একাধিকবার সালিশ হলেও রেনু মিয়া তাদের বৈধ কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেন নি। পরে সাহেব সর্দারগণ সিদ্ধান্ত নেন ফয়সালা করেই জায়গায় যেতে হবে। কিন্তু তারা বিচার সালিশ অমান্য করে জোর পূর্বক আমাদের জায়গা দখল করতে চেয়েছিল। আমরা বাঁধা দিয়েছি বলেই আমাদের মেরে আহত করেছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান আহত সুজন।

এই দিকে আহত রেনু মিয়া বলেন, আমার জায়গায় আমি ঘর তুলতে গেলে তারা আমাকেসহ আমার ছেলে শাকিল (২৪), হালিমা খাতুনকে (৬০) মেরে আহত করে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উভয়পক্ষের মোট ছয়জন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইমার্জেন্সি বিভাগে ভর্তি রয়েছে।বিষয়টি নিয়ে দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাবু নন্দন বলেন, এর আগে বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েক বার দরবার হয়েছে কিন্তু কোন ফয়সালা হয়নি। আজ রেনু মিয়া ঘর তুলতে গেছে, প্রতিপক্ষ তাদেরকে বাঁধা দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ওসি স্যারের সাথে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

443 total views, 1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Lost Password?