অলিম্পিকে টি-টেন ক্রিকেট চান আফ্রিদি

এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন পায়নি টি-টেন ক্রিকেট। তবে ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাট আবিষ্কারের পর থেকেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ২০২০ সালের অলম্পিকে টি-টেন ক্রিকেটকে সংযুক্ত করার পক্ষে মত দিয়েছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি।

পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমার মনে হয় অলিম্পিকের জন্য টি-টেন ক্রিকেটই সেরা ফরম্যাট। নতুন এই ফরম্যাট সবাই উপভোগ করছে, আশা করি অলিম্পিকেও জনপ্রিয়তা পাবে।’

টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে আগেই অবসরে গেছেন আফ্রিদি। ২০১৬ সালের মার্চে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরে যান পাকিস্তান ক্রিকেট দলের এই অধিনায়ক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও ঘরোয়া টি-২০ লিগ খেলে যাচ্ছেন বুমবুম খ্যাত এই ক্রিকেটার।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে সদ্য শেষ হওয়া টি-টেন ক্রিকেট লিগে পাখতুন্সের অধিনায়কের দায়িত্বপালন করেন আফ্রিদি। কোয়ার্টার ফাইনালে ১৭ বলে অপরাজিত ৫৯ রান করে দলকে ফাইনালে তুলেন আফ্রিদি।

রোববার শারজায় অনুষ্ঠিত টি-টেন ক্রিকেট লিগের ফাইনালে ড্যারেন স্যামির নর্দান ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ২২ রানে হেরে যায় পাখতুন্স। ফাইনালে কিয়েরন পাওয়েলের ২৫ বলে গড়া ৬১ রানের অপরাজিত ইনিংসে ভর করে ৩ উইকেটে ১৪০ রান করে নর্দান।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১১৮ রান তুলতে সক্ষম হয় শহীদ আফ্রিদির পাখতুন্স।

এদিন খেলা শেষে পাখতুন্সের অধিনায়ক আফ্রিদি বলেন, ‘টি-টেনে দ্রুত খেলা শেষ হয়। ক্রিকেটে সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাটে বোলারদের জন্য যথার্থ পরীক্ষা এবং ব্যাটসম্যানদেরও বিগ হিটিং স্কিলের পরীক্ষা দিতে হয়ে দারুণ সব শট খেলতে হয়। আমি মনে করি টি-১০ ফরম্যাট ক্রিকেট খেলাটাকেই বদলে দেবে। তাছাড়া কম সময়ে খেলা হয় বলে বিশ্বের সর্বত্র এটাকে ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভব হবে।’

উল্লেখ্য, ১৯০০ সাল থেকে অলিম্পিক গেমসে ক্রিকেট ছিল না। আসন্ন কমনওয়েলথ গেমসে নারীদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির জন্য আবেদন করেছে আইসিসি। অলিম্পিকেও ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির জন্য চেষ্টা চালাচ্ছেন বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

598 total views, 2 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Lost Password?